পাঁচগ্ৰাম পুলিশের নাকের ডগায় পুড়ল বাইক, বেখবর পুলিশ।

পাঁচগ্ৰাম পুলিশের নাকের ডগায় পুড়ল বাইক, বেখবর পুলিশ।

পাঁচগ্ৰাম পুলিশের নাকের ডগায় পুড়ল বাইক, বেখবর পুলিশ।

 পাঁচগ্ৰাম থানার তিনশো মিটারের ভিতরে থাকা ইন্টাক মাঠে শুক্রবার সাতসকালে পথচারীরা এ এস ১১ এস ১৯৯৭ নম্বরের একটি ভস্মীভূত বাইকের ধব্বংশাবশেষ দেখতে পান। সঙ্গে সঙ্গে খবর ছড়িয়ে পড়ে গোটা এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে যে এদিন দুপুরে বাইকটি উদ্বার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। বাইকটি কার ? এই বাইকটি ইন্টাক মাঠে এলোইবা কীভাবে ? জ্বললই বা কিভাবে ? কে বা কাহারা কেনইবা জ্বালিয়েছে ? এর পেছনে কিইবা রহস্য লুকিয়ে আছে ? ইত্যাদি নানা প্রশ্ন উঠেছে লোকমুখে। ইদানিং বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় ক্রমাগত ‌প্রকাশিত হচ্ছে এলাকায় নিয়মিত সংগঠিত হওয়া চুরি,মাদক সেবন সহ ইত্যাদি অসামাজিক খবর। এদিনের এই পুড়ে ছাই হওয়া বাইকটির ঘটনা নিয়ে পুড়ো এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বাইক মালিকের কোন হদিস পায়নি ‌পুলিশ। পাচগ্ৰাম এবং কাটাখাল এলাকায় নিত্যদিনই রাতের অন্ধকারের সুযোগকে কাজে লাগিয়ে রুটিন মাফিক মদ এবং জোয়ার আড্ডা বসে বা অসামাজিক কার্যকলাপ প্রায় হয়েই থাকে এমন চর্চা সর্বত্রই। তবে এই বাইকটিকে জ্বালিয়ে দেওয়ার সম্পুর্ণ ঘটনার পেছনে কি কোন গভীর রহস্য লুকিয়ে রয়েছে তা সঠিক পুলিশ তদন্তের মাধ্যমে বেরিয়ে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন সচেতন বিজ্ঞ নাগরিকরা।

LEAVE A COMMENT

Comment