সোনাইর বিধায়ক ‌তথা আসাম বিধানসভার উপাধ্যক্ষ আমিনুল হক লস্করের দেহরক্ষীর গুলিতে গুরতর জখম ৩ ব্যাক্তি।সোনাইতে রক্তারক্তি কান্ড

সোনাইর বিধায়ক ‌তথা আসাম বিধানসভার উপাধ্যক্ষ আমিনুল হক লস্করের দেহরক্ষীর গুলিতে গুরতর জখম ৩ ব্যাক্তি।সোনাইতে রক্তারক্তি কান্ড

সোনাইর বিধায়ক ‌তথা আসাম বিধানসভার উপাধ্যক্ষ আমিনুল হক লস্করের দেহরক্ষীর গুলিতে গুরতর জখম ৩ ব্যাক্তি।সোনাইতে রক্তারক্তি কান্ড

- আসাম বিধানসভা নির্বাচনের দিন বৃহস্পতিবার ১ লা এপ্রিল  কাছাড় জেলার সোনাই বিধানসভা নির্বাচন কেন্দ্রে ঘটে রক্তারক্তি কান্ড। ঘটনার বিবরণে জানা গেছে যে সোনাইর বিধায়ক তথা আসাম বিধানসভার উপাধ্যক্ষ আমিনুল হক লস্কর এদিন সোনাইর ধনেহরি ৪৬৩ নং ভোট কেন্দ্রটি পরিদর্শন করে বেরিয়ে আসার সময় মহাজোটের প্রার্থীর সমর্থক আব্দুল কাদের নামের

এক ব্যক্তি উপাধ্যক্ষ আমিনুল হক লস্করকে দেখে কুমন্তব্য করে। তখন সোনাইর বিধায়ক তথা উপাধ্যক্ষ আমিনুল হক লস্কর রেগে গিয়ে ঐ ব্যক্তির শার্টের কলার ধরে ঝটকায় এবং তাকে শাসায়। তখন ঐ মহাজোটের সমর্থক ব্যাক্তি আব্দুল কাদেরের সঙ্গে থাকা ব্যাক্তিদের সঙ্গে বিধায়ক তথা উপাধ্যক্ষ আমিনুল হক লস্করের সঙ্গে বচসা শুরু হয়। এক সময় এই বচসা চরম আকার ধারণ করে। শুরু হয় ভোটকেন্দ্রে ইট পাটকেল পাথরের ঝড়। এমন পরিস্থিতিতে বিধায়ক তথা উপাধ্যক্ষের এক দেহরক্ষী আহত হয়। তখন বিধায়কের অন্য দেহরক্ষীরা ছয় রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এতে ৩ ব্যাক্তি গুরতর হয়। শুরু হয় সোনাইতে রক্তারক্তি কান্ড। দেহরক্ষীর গুলিতে গুরতর জখম ৩ ব্যাক্তি হলেন বাহারুল ইসলাম (২৩),আজাদ হোসেন আজু (৪৫), আনোয়ার হোসেন (২৫)। তখন উত্তেজিত হাজার হাজার জনতা বিধায়ক তথা উপাধ্যক্ষ আমিনুল হক লস্কর সহ পুরো ভোটকেন্দ্রটি ঘিরে ফেলে। খবর পেয়ে আসাম পুলিশের আরক্ষী সঞ্চালক প্রধান এস এন সিং এবং কাছাড়ের পুলিশ সুপার ভি এল মিনা বিশাল পুলিশ এবং সিআরপিএফের বাহিনী নিয়ে বিধায়ক তথা উপাধ্যক্ষ আমিনুল হক লস্করকে তার পোশাক বদলে সিকিউরিটির পোশাক লাগিয়ে ছদ্মবেশ ধারণ করিয়ে কোন রকমে উদ্ধার করে নিরাপদ জায়গায় নিয়ে যায়। এই ঘটনায় সোনাই সহ বরাক উপত্যকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে বিধায়ক তথা উপাধ্যক্ষ আমিনুল হক লস্করের দেহরক্ষীর গুলিতে গুরতর জখম তিন ব্যক্তিকে শিলচর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। তবে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কোন গ্ৰেফতারির খবর পাওয়া যায়নি।

LEAVE A COMMENT

Comment