গোয়ালঘরের দরজা ভেঙ্গে দুইটি বলদ গরু দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা রতনপুর প্রথম খণ্ডে। থানায় মামলা

গোয়ালঘরের দরজা ভেঙ্গে দুইটি বলদ গরু দুঃসাহসিক  চুরির ঘটনা রতনপুর প্রথম খণ্ডে। থানায় মামলা

গোয়ালঘরের দরজা ভেঙ্গে দুইটি বলদ গরু দুঃসাহসিক চুরির ঘটনা রতনপুর প্রথম খণ্ডে। থানায় মামলা

- গোয়ালঘরের দরজা ভেঙ্গে দুইটি বলদ গরুর চুরির দুঃসাহসিক ঘটনা ঘটল হাইলাকান্দি জেলার হাইলাকান্দি শহরের উপকণ্ঠ রতনপুর প্রথম খণ্ডে। ঘটনার বিবরণে জানা গেছে যে মঙ্গলবার আনুমানিক রাত দুইটার সময়‌‌‌ রতনপুর প্রথম খণ্ডের বাসিন্দা গৃহকর্তা কৃষক নরুল ইসলাম লস্কর এবং তার পরিবারের

সদস্যদের ঘুমের সুযোগ নিয়ে চোরের দল গোয়ালঘরের দরজা ভেঙ্গে দুইটি বলদ গরুকে চুরি করে নিয়ে যায়। গৃহকর্তা কৃষক নরুল ইসলাম লস্কর আজ এই প্রতিবেদককে জানান যে তিনি প্রতিদিনের ন্যায় সমস্ত দিন বলদ গরু দুটিকে নিয়ে চাষাবাদের

 

কাজ সেরে মঙ্গলবার সন্ধা ৫.৩০ মিনিটে বলদ গরু দুটিকে গোয়ালঘরে বেঁধে গোয়ালঘরের দরজা লোহার বেরী দিয়ে বন্ধ করে নিজ ঘরের ভেতরে চলে যান। এদিন রাতে গৃহকর্তা কৃষক নরুল ইসলাম লস্কর এবং তার স্ত্রী সহ পরিবারের সদস্যরা যখন গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন তখন চোরের দল এসে গোয়াল ঘরের দরজা

ভেঙ্গে বলদ গরু দুটিকে চুরি করে নিয়ে যায়। পরদিন বুধবার সকালে গৃহকর্তা কৃষক নরুল ইসলাম লস্করের স্ত্রী জাহানারা বেগম লস্কর যখন বলদ গরু দুইটিকে খাবার দিতে যান তখন দেখেন যে কে বা কাহারা গোয়ালঘরের দরজা ভেঙ্গে বলদ গরু দুটিকে চুরি করে নিয়ে গেছে। তখন গৃহকর্তা কৃষক নরুল ইসলাম লস্করের স্ত্রী জাহানারা বেগম লস্কর চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করলে তার স্বামী নুরুল ইসলাম লস্কর এবং অন্যান্য পাড়া-

প্রতিবেশীরা ছুটে এসে দেখতে পান যে গোয়ালঘরের দরজা ভাঙ্গা এবং বলদ গরু দুটির গলার রশি কাটা অবস্থায় পড়ে রয়েছে। আর বলদ গরু দুটি গায়েব রয়েছে। গৃহকর্তা কৃষক নরুল ইসলাম লস্কর আরো জানান যে দশ মাস পূর্বে হাইলাকান্দির রতনপুরের লস্করা বাজার থেকে তিনি এই বলদ গরু দুটিকে ক্রয় করেছিলেন। এই বলদ গরু দুটির মধ্যে একটি নেরা লাল রঙের অন্যটি লাল রঙ্গের কিন্তু কপালের দিকটা সাদা। এই বলদ গরু দুটির চুরির বিবরণ জানিয়ে গৃহকর্তা কৃষক নরুল ইসলাম লস্কর এদিন হাইলাকান্দি সদর থানায় একটি চুরি সংক্রান্ত মামলা দায়ের করেন। এই বলদ গরু দুটিকে ক্রয় করার এক বছর পূর্ণ হবার পূর্বেই বলদ গরু দুটির দুঃসাহসিক চুরির ঘটনায় ভেঙ্গে পড়েছেন গৃহকর্তা কৃষক নরুল ইসলাম লস্কর এবং তার

পরিবারের সদস্যরা। গৃহকর্তা কৃষক নরুল ইসলাম লস্করের পরিবারের পক্ষ থেকে তার স্ত্রী জাহানারা বেগম লস্করের জেষ্ঠ্য ভ্রাতা সামসুল হক লস্কর জানান যে এই বলদ গরু দুটির কেহ‌ সন্ধান পেলে বা চোরের হদিস জানলে ৯৬৭৮২০৫৮৭৫ এবং ৭৯৭৭৩১১৭৭৯ এই নম্বরে ফোন করে জানানোর জন্য। চুরি হওয়া বলদ গরু দুটির সন্ধান বা চোরের হদিস দিতে পারলে ঐ ব্যক্তিকে নগদ পাঁচ হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে।

LEAVE A COMMENT

Comment

  • 08 April 2021, 10:00 PM